হাটহাজারীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে এক ভূয়া চিকিৎসক আটক

0
57
0 Shares

হাটহাজারী প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে একটি ঔষুধের দোকান থেকে নারগিস আক্তার নামের এক ভুয়া চিকিৎসককে আটক করেছে। গত সোমবার ২৮ই সেপ্টেম্বর উপ জেলার বুড়িশ্চর ইউনিয়নের তেঁতুলতলা এলাকার এক ঔষুধের দোকান থেকে উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ রুহুল আমিনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত এ অভিযন পরিচালনা

করে তাকে আটক করা হয়। ঔষুধের দোকানটিও আটককৃত ভুয়া চিকিৎসকের বলে জানাগেছে। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অনুরোধে মুচলেকা দিয়ে ‘আর চিকিৎসা করবেনা মর্মে’ তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা যায় , আটককৃত নার্গিস আক্তার কৌশলে নিজের নামের আগে ভিজিটিং কার্ডে ডা. লিখে সকল রোগের চিকিৎসা দেয়া হয় মর্মে প্রচার করে।

সুযোগ ফেলে গর্ভবতী মায়েদের চিকিৎসার নামেও প্রতারণার অভিযোগ উঠে তার বিরুদ্ধে। অভিযান কালে ফটিকছড়ি একটি হসপিটাল থেকে নার্সিংয়ের উপর ট্রেণিং করেছেন স্বীকার করলে ডাক্তার লিখা বা চিকিৎসার ব্যাপারে কোন সদুত্তর দিতে পারেনি। নাঈম নয়ন নামে একটি ফার্মেসি খুললেও নেই ঔষধ বিক্রির কোন লাইসেন্স। এমনকি ব্যবসায়ীক ট্রেড লাইসেন্সও দেখাতে পারেননি।

ফটিকছড়ি দাঁতমারা ও ভুজপুর এলাকা থেকেও একই কারণে বিতারিত হওয়ার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে।উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন জানান, উনার ফার্মেসির পেছনে টেইলারিংয়ের কাজ করেন। সামনে রেখেছেন ফার্মেসি। কোন লাইসেন্স নেই। ডাক্তার না হয়েও ভিজিটিং কার্ডে ডাক্তার লিখে মানুষের সাথে প্রতারণা করছেন। তাকে আটক করলেও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অনুরোধে

মানবিক কারণে তাদের জিম্মায় আর এমন করবে না মর্মে মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, হাটহাজারী উপজেলার কোথাও এ ধরনের অভিযোগ পেলে কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা।

মোঃ সাহাবুদ্দীন সাইফ / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

পোস্ট টি সম্পর্কে আপনার মতামত জানানঃ