হাটহাজারীতে প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে

0
145
হাটহাজারীতে প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে
হাটহাজারীতে প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে
0 Shares

হাটহাজারী প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে কাজ না করেই উন্নয়নের নামে চারটি প্রকল্পের আট লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে মির্জাপুরের ইউপি সদস্য বাবু রুপেন শীল, জাহানারা বেগম ও মোঃ ইউ সুফের বিরুদ্ধে। উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদের তিনজন সদস্য কাজ না করে চারটি প্রকল্পের আট লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন এই মর্মে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন মির্জাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ স্থানীয় কয়েকজন।

অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করেন যে, গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বরাদ্দকৃত প্রকল্প ১% এর ১নং ওয়ার্ড সদস্য বাবু রুপেন শীল ‘মির্জাপুর অগ্নিবীণা ক্লাবে আসবাবপত্র সরবরাহ’ প্রকল্পটির কোনো ধরনের কাজ বাস্তবায়ন না করে দুই লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন। ৪, ৫, ৬নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য জাহানারা বেগম ‘মির্জাপুর মুহূরী হাট-বাজারের পুরাতন ইউপি কার্যালয় মেরামত’ প্রকল্পটির দুই লাখ টাকা এবং ‘মির্জাপুর মতিলাল চৌধুরী বাড়ি সড়কে ব্রিক সলিন নির্মাণ’ প্রকল্পে কোনো ধরনের কাজ না করেই দুই লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন।

২নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. ইউসুফ ‘মির্জাপুর উদ্দীপন ক্লাবে আসবাবপত্র সরবরাহ’ প্রকল্পের দুই লাখ টাকা আত্ম সাৎ করেন। অথচ উদ্দীপন ক্লাবটি অন্তত এক যুগেরও বেশি সময় আগে বিলুপ্ত হয়ে গেছে। এই ক্লাবের কোনো কার্যালয়ও নেই। কিভাবে ক্লাবটির নাম ব্যবহার করে টাকা আত্মসাৎ করেছে? এ প্রশ্নে এলাকায় সমালো চনার ঝড় ওঠে। উল্লেখিত চারটি প্রকল্প মোট আট লাখ টাকা প্রকল্পের সভাপতি সংশ্লিষ্ট সদস্যগণ আত্মসাত করেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ইউপি সদস্যগণ বলেন, কিছু কিছু কাজ হয়েছে। বিভিন্ন বাধা সম্মুখীন হওয়ায় সব কাজ সম্পন্ন করতে পারিনি। প্রকল্প আত্মসাতের ব্যাপারে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন বলেন, অভিযোগ পেয়ে মির্জাপুর ইউনিয়নের ওই চারটি প্রকল্পের বিষয়ে সরজমিনে তদন্ত করা হয়। প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি।

আসলে কাজ না করেই টাকা উত্তোলন করেন প্রকল্পের সভাপতিসহ অভিযুক্ত ঐ সদস্যগণ। তদন্ত এখনো চলমান রয়েছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য মাননীয় ডিসি স্যার বরাবর প্রেরণ করা হবে।

মোঃ সাহাবুদ্দীন সাইফ / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

পোস্ট টি সম্পর্কে আপনার মতামত জানানঃ