হাটহাজারীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দোকান কর্মচারীর উপর হামলা

0
506
0 Shares

হাটহাজারী প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আব্দুল্লাহ আল নোমান (২৮) নামে র এক দোকান কর্মচারীকে ধারালো কিরিচের আঘাতে গুরুতর আহত করা হয়। বৃহস্প্রতিবার ২৪ শে সেপ্টে ম্বর সন্ধ্যায় হাটহাজারী পৌরসভা এলাকার কাচারী রোডস্থ হক ষ্টোর নামক একটি দোকানে এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষ দর্শী সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্প্রতিবার আছরের নামাজের পর পৌরসভা অফিস সংলগ্ন

কোর্ট মসজিদের সামনে ১২ বছরের একটি ছেলেকে অহেতুক মারধর এবং কানধরে উঠবস করালে বিষয়টি বিসমিল্লাহ মোবাইল টাস এর স্বত্বাধিকারী আব্দুল্লাহ আল মারুফ দেখেন তখন তিনি মসজিদে উপস্থিত অন্যান্য মুসল্লীদের সাথে নিয়ে প্রতিবাদ জানান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শাহেদের নেতৃত্বে আরো ১০/১২ জন যুবক দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হঠাৎ কাচারী সড়ক বণিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক

আলি আজমের মালিকীয় কাচারী রোডস্থ হক ষ্টোরে প্রবেশ করে প্রতিবাদকারী আব্দুল্লাহ আল মারুফকে গাল মন্দ করে খুঁজতে থাকে। এ সময় দোকানে কর্তব্যরত আব্দুল্লাহ আল নোমান তাদের জানায় এটা মারুফের দোকান নয়। গালমন্দ করলে তাদের দোকানে গিয়ে কর। তাতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে দোকান ভাংচুর শুরু করে এসময় বাধা দিতে গেলে সানজু ধারালো কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে নোমানকে আঘাত করে।

নোমানের চিৎকার শুনে পার্শ্ববর্তী ব্যবসায়ী আব্দুল্লাহ আল মনছুর(৪৫) এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করে চলে যায় হামলাকারীরা। পরে দোকানের মালিক ও স্থানীয়রা গুরুতর আহতাবস্থায় নোমানকে উদ্ধার করে প্রথমে হাট হাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলেও অবস্থা বেগতিক হওয়ায় চমেক হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয় কর্তব্য রত চিকিৎসক।

আহত আব্দুল্লাহ আল নোমান উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের চারিয়া এলাকার ওয়াহিদ তালুকদারের বাড়ির মৃত ফয়েজ আহম্মদের পুত্র বলে জানাগেছে। এ ঘটনায় মেডেল থানায় তিন জনের নামোল্লেখ করে আরো ১০/ ১২ জনকে অজ্ঞাতনামা দিয়ে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী। মামলার আসামী রা হলেন, হাটহাজারী পৌরসভা এলাকার পশ্চিম দেওয়ান নগর এলাকার মনছের বাপের বাড়ির

মোঃ ইউনুছের পুত্র সানজু (২২), উপজেলার চারিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম খন্দকার পাড়ার আঃ হাফেজের বাড়ির মো.কামাল উদ্দিনের পুত্র মোঃ শাহাদাৎ হোসাইন (প্রকাশ) শাহেদ(১৯) ও উপজেলার মেখল ইউনিয়নের ইছাপুর এলাকার মোঃ আকাশ(২৪)। কাচারী সড়ক বণিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও হক ষ্টোরের স্বত্বাধিকারী মোঃ আলি আজম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,

থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। আশা করি প্রশাসন সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেবেন। এ দিকে দোকান কর্মচারী কে ধারালো কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে আহত করা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভাংচুর করার প্রতিবাদে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হাটহাজারী ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো ও হাটহাজারী দোকান কর্মচারী সমিতি।

মো.সাহাবুদ্দীন সাইফ / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

পোস্ট টি সম্পর্কে আপনার মতামত জানানঃ