হাওর ও জীব বৈচিত্র রক্ষা করতে হবে সচিব কবির বিন আনোয়ার

0
43
0 Shares

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দুরদর্শী নেতৃত্বে আমরা এখনো ভাল আছি। খাদ্য শষ্য উৎপাদনে দেশ এগিয়ে রয়েছে। তিনি বলেন, হাওরের ধান ও জীব বৈচিত্র রক্ষা করতে হবে। মাছের উৎপাদন বাড়াতে হবে। অতিথি পাখিদের খাদ্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। হাওর পাড়ের মানুষের জীবনমান উন্নীত করতে হবে। হাওর এলাকায় বেশি করে গাছ লাগাতে হবে। আমাদেরকে বেড়িবাধ থেকে বেড়িয়ে আসতে হবে।

স্থায়ী সমস্যার সমাধান করতে হবে। খাল, বিল, নদী-নালা খনন করতে হবে। আশা করছি আগামী ৩ বছরের মধ্যে হাওর ও জীব বৈচিত্র রক্ষায় স্থায়ী সমাধান হবে। যদিও এবার হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাধের কাজ ভাল হয়েছে। তিনি পিআইসিদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা টাকার জন্য চিন্তা করবেন না। একটু ধর্য্য ধরুন অচিরেই টাকা পাবেন। ২৮ই ফেব্রুয়ারী রোববার সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে সুনামগঞ্জ জেলা পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সচিব এসব কথা বলেন।

সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে ও জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী হাসানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা পাউবো’র নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সবিবুর রহমান-১। সভায় মুক্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন, জগন্নাথপুর উপজেলা শ্রমিক লীগের আহবায়ক নুরুল হক, সাংবাদিক শংকর রায়, হিমাদ্রি শেখর ভদ্র, জগন্নাথপুর উপজেলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহ জাহান মিয়া প্রমূখ।

এ সময় পাউবোর সিলেট উত্তরপূর্ব অঞ্চল প্রধান এ এস এম শহিদুল ইসলাম, তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী কুশি মোহন সরকার, সুনামগঞ্জ নির্বাহী প্রকৌশলী শামসুদ্দোহা-২, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আক্তারুজ্জামান, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী আবদুর রব সরকার, জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, পাউবোর জগন্নাথপুর

উপজেলা উপ-প্রকৌশলী হাসান গাজী, চিলাউড়া-হলদিপুর ইউপি চেয়ারম্যান আরশ মিয়া, সৈয়দপুর-শাহার পাড়া ইউপি চেয়ারম্যান তৈয়ব মিয়া কামালী, পাইলগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মখলুছ মিয়া সহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে সচিব নির্মাণাধীন নলুয়ার হাওরের ফসল রক্ষা বেড়বিাধ পরিদর্শন করেন।

নিজস্ব প্রতিবেদক / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here