হবিগঞ্জের লাখাইয়ে জমিতে হাঁস যাওয়াকে কেন্দ্র করে চাচাত ভাইয়ের দায়ের কোপে এক ব্যক্তি নিহত

0
281
ফাইল ছবি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের লাখাইয়ের আমানুল্লাহপুর গ্রামে জমিতে হাঁস যাওয়াকে কেন্দ্র করে চাচাত ভাইয়ের দায়ের কুপে মফিজুল মিযা (৩৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মফিজুল মিয়া ওই গ্রামের বাসিন্দা ধনু মিয়ার ছেলে। খবর পেয়ে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। অপর দিকে ঘটনার পর এলাকা ছেড়ে পরিবার নিয়ে পালিয়ে গেছে ঘটনার সাথে জড়িত বয়াতুল মিয়া। স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, নিহত মফিজুল মিয়ার একটি হাঁসের খামার রয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে তার খামারের হাঁস চাচা আছকির মিয়ার ছেলে
বয়াতুল মিয়ার জমিতে গিয়ে ক্ষতি সাধণ করে। এ নিয়ে তাদের মাঝে বাকবিতন্ড হয়। এক পর্যায়ে বয়াতুলের হাতে থাকা ধারালো দা দিয়ে ঘাড়ে কুপ দিলে মফিজুল ঘটনাস্থলেই মারা যায়। ঘটনার পর বাড়িঘর তালাবদ্ধ করে বয়াতুলসহ তার পরিবারের লোকজন পালিয়ে যায়। দায়ের করা হয়নি। এ ব্যাপারে লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম জানান, জমিতে হাঁস যাওয়াকে কেন্দ্র নিহত মফিজুলের সাথে তার চাচাত ভাই বয়াতুল মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে বয়াতুল মিয়ার হাতে থাকা ধারালো দা দিয়ে মফিজুল ঘাড়ে কুপ দিলে সে মাটিতে পড়ে যায়। এ অবস্থায় মফিজুলকে রেখে বয়াতুল পালিয়ে যায়। মফিজুল শোর চিৎকার শুনে আশ পাশের লোকজন গিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করেছি। এ ঘটনায় জড়িত বয়াতুলকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অব্যাহত অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। তবে এ ঘটনায় এখনও মামলা দায়ের করা হয়নি।

অপু আহমেদ রওশন / দৈনিক সংবাদপত্র 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here