শেষ মূহুর্তের প্রচারনায় জমে উঠেছে সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচন

0
30

আদমদীঘি প্রতিনিধিঃ আর মাত্র ৪ দিন বাকী। আগামী ১৬ই জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হবে বগুড়ার আদমদীঘি উপ জেলার সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচন। নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে, নির্বাচনী উত্তাপও ততই বাড়ছে। শেষ মূহুর্তের প্রচার প্রচারনায় জমে উঠেছে নির্বাচনী পরিবেশ। প্রার্থীদের পোষ্টারে পোষ্টারে ছেয়ে গেছে শহরের অলি-গলি,পাড়া-মহল্লা। চলছে অবিরাম গন সংযোগ। নাওয়া খাওয়া ছেড়ে নির্বাচনী প্রচারনায় ব্যাস্ত সময় কাটছে প্রার্থী ও কর্মী সমর্থকদের।

সান্তাহার পৌর সভায় এবার মেয়র পদে ৩ জন, ৩টি সংরক্ষিত নারী আসনে ১০ জন এবং ৯টি সাধারন ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ২৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন, ক্ষমতাসিন আওয়ামী লীগের মনোনীত আশরাফুল ইসলাম মন্টু, বিএনপি’র তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর আব্দুর রাজ্জাক। এদের মধ্যে আওয়ামীলীগ প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম মন্টু ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক এবারে নতুন মুখ।

বিপরীতে বিএনপির প্রার্থী তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু পর পর দুইবারের নির্বাচিত এবং বর্তমান মেয়র। তিন মেয়র প্রার্থীর প্রচার প্রচারনা চলছে সমানে সমান। জয়ের ব্যাপারে তিন প্রার্থীই আশাবাদী। তবে, মুল প্রতিদ্বন্দিতা হবে নৌকা ও ধানের শীষের মধ্যে, এমনটাই আভাস মিলছে এলাকার ভোটারদের মাধ্যমে। আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম মন্টু বলেন, তিনি নির্বাচিত হলে এই পৌর সভাকে একটি মডেল ও ডিজিটাল পৌর সভায় রুপান্তর করবেন।

বর্তমান সরকারের বহুমুখী উন্নয়ন কর্মকান্ডের ধারাবাহিকতায় তিনি সান্তাহার পৌরসভাকে সার্বিক উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিত করতে চান। অপরদিকে বিএনপি মনোনিত প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু নির্বাচন সুষ্ঠ হবে কি না এমন আশংকা প্রকাশ করে বলেন, তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর এই পৌর সভাকে প্রথম শ্রেনীর পৌরসভায় রুপান্তর করেছেন। পৌর এলাকায় বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহ সহ ভাঙ্গা চুড়া রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন করে নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধি করেছেন।

তাছাড়া পূর্বের দায় দেনা সহ কর্মকর্তা কর্মচারিদের প্রায় অর্ধকোটি টাকা বকেয়া বেতন ভাতা পরিশোধ করেছেন এবারে নির্বাচিত হলে তিনি অসম্পন্ন কাজ গুলো সম্পন্ন করতে চান। তিনি দাবি করেন, সুষ্ঠ নির্বাচন হলে, পৌর বাসী পুনরায় তাকে নির্বাচিত করবেন। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত অপর প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, তিনি নির্বাচিত হলে ঘুষ ও দূর্নীতি মুক্ত একটি পরিচ্ছন্ন পৌরসভা নির্মানে কাজ করে যাবেন। জয়ের ব্যাপারে তিনিও আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।

এদিকে, প্রতিশুতির ফুল ঝুড়িতে পিছিয়ে নেই সংরক্ষিত মহিলা ও সাধারন ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদ প্রর্থীরাও। তারা ও কাক ডাকা ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে দৌড়-ঝাঁপ করছেন। দিচ্ছেন নানা রকমের প্রতিশুতি। সব মিলিয়ে শেষ সময়ে গোটা পৌর এলাকায় এখন নির্বাচনী উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। আদম দীঘি উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ পৌরসভায় বর্তমান ভোটার সংখ্যা ২৬ হাজার ১৭২ জন।

এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১২ হাজার ৮০৪ জন আর নারী ভোটার ১৩ হাজার ৩৬৮ জন। এবার এ পৌরসভায় ১২টি ভোট কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহন করা হবে।

সাগর খান / দৈনিক সংবাদপত্র 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here