শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীরা ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত

0
75

চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ ২০০৪ সালের ২১ই আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক দোয়া মিলাদ মাহ ফিল ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বোর্ড সদস্য এম আর আজিম আজিম প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে উক্ত মন্তব্য করেন। তার বক্তব্যে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জীবনে দীর্ঘ সময় জেল জুলুম নির্যাতন সংগ্রামের মাধ্যমে বাংলাদেশকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছিলেন। কিন্তু ১৯৭৫ সালে স্বাধীনতা বিরোধীরা জাতির মহান এ নেতাকে স্বপরি বারে নির্মমভাবে হত্যা করে।

সৌভাগ্যক্রমে জননেত্রী শেখ হাসিনার বেঁচে যান। ষড়যন্ত্রকারীরা ব্যর্থ হয়ে বারবার শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য প্রচেষ্টা চালায়। তারই ধারাবাহিকতায় ২০০৪ সালের ২১আগস্ট গ্রেনেড হামলা করা হয় তার উপরে। এ সময় তিনি বলেন, পচাত্তরের পরবর্তী সময়ে ক্ষমতায় যারা এসেছেন জঙ্গিবাদ, খুন অরাজকতা ছাড়া তারা আর কোন উন্নয়ন করতে পারেনি। চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক এ সভাপতি নেতাকর্মীর উদ্দেশ্যে বলেন, যারা মুক্তিযুদ্ধের বিশ্বাস করে, দেশকে ভালোবাসে তাদেরকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে। তিনি বলেন, মরহুম এবি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী সুযোগ্য পুত্র বর্তমান সরকারের শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল

এর নেতৃত্বে চট্টগ্রামের নেতাকর্মী ও দক্ষ বদ্ধভাবে জঙ্গিবাদী অপরাজনীতি নির্মল করতে বদ্ধপরিকর। এম আর আজিম তার বক্তব্যে শেখ হাসিনা সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড নেতাকর্মীদের মাঝে বিশদভাবে তুলে ধরেন। আলহাজ্ব এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী স্মৃতি সংসদ উদ্যোগে আয়োজিত ২১শে আগস্ট আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গ্রেনেড হামলায় নিহত আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভি রহমানসহ সকল শহীদদের স্মরণে একুশে আগস্ট রোজ শনিবার নগরীর বিশিষ্ট একটি কনভেনশন হলে উক্ত বিশেষ কোরআন খতম দোয়া মাহফিল ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে মেহেদীবাগ সিডিএ জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা হাবিবুর রহমান নিজামীর পরিচালনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবার সহ ২১ই আগস্ট নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দোয়া ও মোনাজাতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করা হয়।বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের কার্য নির্বাহী সদস্য আলী রেজা পিন্টুর সঞ্চালনায় এ সময় বক্তব্য প্রদান করেন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ফজলুল কবীর সোহেল,

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাবেক সহ-সম্পাদক আবু সাঈদ সুমন, সাবেক ছাত্রনেতা আদ নান মাহবুব সজীব, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি একরামুল রাসেল প্রমুখ। উক্ত দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় অতিথিদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন নগর যুবলীগ নেতা গিয়াস সিদ্দিকী, যুবনেতা মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন, এম আর আজিম আইনি সহায়তা পরিষদের আহবায়ক তরুণ আইনজীবী শাহাদাত হোসেন পিন্টু, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের উপ-পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক তুষার ধর, যুব নেতা সোহেল ইমরান, নওশাদ আলম মুন্না, হাফেজ‌ উল্লাহ,

চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগ সাবেক সহ-সভাপতি মোঃ ইফতেখার, চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্র নেতা সানি দাস, চাঁদগাও থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌহিল ইসলাম বাবু, ডাবলমুরিং থানা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সজীবুর রহমান, চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগ নেতা তৌরাত হোসেন রাফি, হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ ছাত্রলীগে র আহবায়ক সদস্য চৌধুরী শোয়েব, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা সুফিয়ান সিদ্দিকী নিলয়, ছাত্রনেতা কাজী তারেক আহমেদ, আলী মাহমুদ, চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগ নেতা ফরহাদ হক,

এমইএস কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সৈয়দ তুহিন, সিটি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মীর কাসেম, সদরঘাট ছাত্রলীগ নেতা শামীম হোসেন শাহেদ হসেন শাকিল, সাঈদ অনি সহ নগর যুবলীগ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

ইসমাইল ইমন 

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here