মেয়র হলে উন্নত ও আধুনিক, দালাল মুক্ত পৌরসভা গড়বো

0
215
মেয়র হলে উন্নত ও আধুনিক দালাল মুক্ত পৌরসভা গড়বো
মেয়র হলে উন্নত ও আধুনিক দালাল মুক্ত পৌরসভা গড়বো
0 Shares

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ আসছে আগামী হবিগঞ্জ পৌর নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী, ওসমানী স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলার সাবেক সভাপতি সংবাদ কর্মী ২নং ওয়ার্ড কমিনিটিং পুলিশিং এর যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, সমাজসেবী অপু আহমেদ রওশন বলেন পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হলে উন্নত ও আধুনিক যানযট মুক্ত শহর ও পৌরসভার উন্নয়নের স্বার্থে ১০% কমিশন বিহীন লটারির মাধ্যেমে ঠিকাদার দিয়ে,


এবং দালাল মুক্ত পৌরসভা গড়বো। যে পৌরসভা পৌরসভার মতোই হবে। মুখে নয় কাজে বিশ্বাসী। হুমকির মাধ্যমে জনগনের ভালবাসার অপপ্রকাশ করতে চান না, জনগনের সাথে একই সারিতে দাড়িয়ে সেবামূলক কাজে ভালবাসার বহিঃপ্রকাশ করতে চান। অপু আহমেদ রওশন কিশোরকাল থেকেই স্পষ্ট কথায় বিশ্বাসী, তিনি কখনও অন্যায় কারীদের পছন্দ করেননি, সবসময় অন্যায়ের প্রতিবাদ করে যাচ্ছেন,


সমসময় চেষ্টা করেন বিপদগ্রস্ত মানুষের উপকার করার,মাদকের বিরুদ্ধে সব সময় প্রতিবাদী, ওনার জন্ম হবিগঞ্জ পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে। সাধারণ পরিবারের সন্তান জীবনের একটি সময় কাটিয়ে ছিলেন ছাত্র রাজনীতিতে। পাশাপাশী ব্যবসা ও সামাজিক সংগঠনের মাধ্যেমে সামাজিক কর্মকান্ডে নিজেকে উৎসর্গ করেছেন, করোনার মহামারীতে


ও কর্মহীন অসচ্চল মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার জন্য নিজের সাধ্যে মতো ও অন্যাদের মাধ্যমে তুলে দিয়েছেন খাদ্য সামগ্রী, ও নগদ অর্থ, তিনি বলেন,নিজের বাবা মাকেকে সেবা করার সুযোগ পাইনিনি। তার আগেই তারা চলে গেছেন না ফেরার দেশে, তাই তিনি মনে করেন পৌরসভার জনগনই বাবা মা, ভাইবোন, সেজন্য জনগনের পাশে থেকে সেবা করতে চান,


ব্যক্তিগত ভাবে আমি টাকা পয়সায় তেমন সচ্চল না হলে, মনে খুব ইচ্ছে মানুষের পাশে থেকে একটু সেবা করার, সুখে রাখার চেষ্টা করবেন । দেশ ও এলাকার জনগনের জন্য কাজ করি,তিনি বলেন আমার মরহুম বাবা মৃত সৈয়দ আলী শিক্ষা দিয়েগেছেন, যে কখনও কারও ক্ষতি করবা না, পারলে উপকার করবা। তিনি সব সময় সেই চেষ্টাই করছেন।


তিনি মনে করি রাজনীতি ও জন সেবার জন্য শিক্ষিত লোকের অভাব নেই, অভাব আছে সুশিক্ষায় শিক্ষিত লোকের ৷ অনেকেই আছে, ভোটের সময় জনগনের মনজয় করার জন্য লেবাস পড়ে ভদ্র সাজার অভিনয় করে, অবৈধ টাকা দিয়ে ভোট কিনতে চায়, নির্বাচিত হয়ে বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখায়, তাদের কে সামাজিক ভাবে বয়কট করার অনুরোধ করেন।


কেননা, মানুষের মনের ভাষা বুঝতে হলে অন্তরে প্রবেশ করার ক্ষমতার প্রয়োজন। নিজেকে ক্লিন ইমেজ মুখে নয়, সাধারন মানুষের পাশে দাড়িয়ে হাতে হাত রেখে, গরিব মানুষে মনে ভাষা বুঝার ক্ষমতা যার আছে থাকেই জন প্রতিনিধি বলে। তিনি সবার পাশে দাঁড়াতে চান বলে অভিমত ব্যাক্ত করেছেন৷ দেশের জনগন শান্তিতে নেই, দুর্নীতিবাজদের কারনে, লুন্ঠন হচ্ছে নাগরিক অধিকার,


পরাজয় হচ্ছে মানবতার, তিনি বলেন জনগনই হচ্ছে ক্ষমতার উৎস, সেজন্য জনগনকে যথাযোগ্য মর্যাদা করি। সকল নাগরিকের আশা। বাস্তবে ক্লিন ইমেজ, বিতর্কহীন প্রার্থীরাই মেয়র হোক, এটাই জনগণও চায়৷ তাই আমি মনে করি অন্যদিক না তাকিয়ে মুখের কথায় বিশ্বাসী না হয়ে কাজে কর্মে দেখে প্রার্থীদের ভোট দিয়ে জন প্রতি নিধি বানান। কারও বাহুশক্তিকে ভয় না করে প্রতিবাদ করুন।


অবৈধ টাকার লোভে না পড়ে সৎ ও যোগ্যদের নির্বাচিত করুন। সেদিক দিয়ে তাদেরকে বিবেচনা করুন সে কেমন,তার পূর্বের ইতিহাস কেমন, চরিত্র কেমন ইত্যাদি, সেই দিকগুলো আপনারাই বিবেচনা করবেন৷ কেননা আমি আমার পিতার কাছ থেকেই বড় ধরণের একটি শিক্ষা পেয়েছি৷


সাধারন পরিবারের দুঃখ কষ্ট কি তা আমি বুঝি। আমি আপনাদের সেবা করতে চাই, জন প্রতিনিধি হিসাবে নয়, আপনাদের সন্তান ও ছোট ভাই হিসাবে, আমাকে আপনারা সেই সুযোগ করে দেন, কথা দিচ্ছি নিজের জীবনের বিনিময়ে হলেও আপনাদের পাশে থাকবো এই অঙ্গিকার করছি।



অপু আহমেদ রওশন / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

পোস্ট টি সম্পর্কে আপনার মতামত জানানঃ