মৃত্যুর ৭মাস পর ডাঃ জীবেশকে বদলি করল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

0
29
0 Shares

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ায় করোনা মোকাবেলয় প্রায় ৭মাস পুর্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেন বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের (সাবেক) সহকারী অধ্যাপক ডাঃ জীবেশ কুমার। কিন্তু মৃত এই চিকিৎসককে ৭মাস পর পদায়ন করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ডাঃ জীবেশ কুমারকে বগুড়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে পদায়ন করা হয়েছে। গত ৫ই জুলাই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ

জারি করা প্রজ্ঞাপন থেকে এ তথ্য জানা যায়। ডাঃ জীবেশ রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের ৩১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী। তিনি ২২তম বিসিএস ক্যাডারের (স্বাস্থ্য) কর্মকর্তা ছিলেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিব জাকিয়া পারভীন স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে করোনা ভাইরাস সুষ্ঠুভাবে মোকাবিলা এবং জন সেবা নিশ্চিত করতে বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডারের কর্মকর্তাদের মধ্যে ৪৩ জন চিকিৎসককে বগুড়ার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ঠ জেলা হাসপাতালে সংযুক্তিতে পদায়ন করা হয়। এই প্রজ্ঞাপনের ১৫ নাম্বার ক্রমিকে ডাঃ জীবেশ কুমার প্রমাণিকের নাম রয়েছে।

জানা যায়, ডাঃ জীবেশ কুমার প্রমাণিক বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেসপি রেটরি মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক পদে কর্মরত অবস্থায় করোনায় আক্রান্ত হয়। ডাঃ জীবেশ কুমার কে জরুরি ভিত্তিতে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি এমআই-১৭১ এসএইচ হেলিকপ্টার যোগে বগুড়া হতে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। ডাঃ জীবেশ কুমার বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাস পাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চলতি বছরে ৬ই জানুয়ারি ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাস পাতালের তত্তাবধায়ক ডাঃ এটিএম নুরুজ্জামান সঞ্চয় এ প্রতিবেদক-কে বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জারিকৃত প্রজ্ঞাপন আমরা হাতে পেয়েছি। সেখানে চলতি বছরের জানুয়ারিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণকারী একজন চিকিৎসকের নাম রয়েছে। আমরা বিষয়টি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে অবহিত করেছি।

জিএম মিজান

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here