বদরগঞ্জের শ্যামপুরে পূর্ব বিবাদের জেরে এক গৃহবধুকে হত্যার চেষ্টা

0
219
ফাইল ছবি

রংপুর প্রতিনিধিঃ গতকাল বুধবার সকালে বদরগঞ্জের শ্যামপুরে গোপালপুর আচার পাড়ায় পূর্ব বিবাদের জেরে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে এক গৃহবধুকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে বেধড় মারপিট ও ধারালো অস্ত্র হত্যার চেষ্টা করেছে প্রতিপক্ষ। আত্ম চিৎকারে দেবর, ও ভাসুড় গ্রাম পুলিশ সহ গ্রামবাসীরা গৃহ বধুকে রক্ষার জন্য এগিয়ে এলে তাদেরকে ও বেধড়ক মারপিট করে। এ ব্যাপারে বদরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। গ্রামবাসী সুত্রে জানা গেছে, রংপুর জেলার বদরগঞ্জ উপজেলার ১১ নং গোপালপুর ইউনিয়নের আচার পাড়া গ্রামের বাসিন্দা জয়নাল মিয়ার ছেলে গোপালপুর ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ মনু মিয়ার মা মনজিলা বেগমের সাথে ক্রয়কৃত জমি নিয়ে আদালত কর্তৃক রায় ও দখল পাওয়ার পর একই গ্রামের অপুর উদ্দিন ও তার ছেলে মমিনুল ইসলাম ও মকছুদুল হক ক্ষিপ্ত হয়ে থাকে।

এর জেরে গতকাল বুধবার সকলে গ্রাম পুলিশ মনু মিয়ার ছোট ভাই মিন্টু মিয়ার স্ত্রী আজেদা বেগমকে কৌশলে বাড়ি থেকে ডেকে বাহিরে এনে অপুর উদ্দিন ও তার ছেলে মমিনুল ইসলাম ও মকছুদুল হক গং কোন কিছু বুঝে উঠার আগে আক্রমণ চালিয়ে বেধড়ক মারপিট ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে হত্যার চালায়। এমতবস্তায়  আজেদার প্রাণে বাচাঁর আত্মচিৎকারে প্রথমে দেবর ফারুক এগিয়ে আসলে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলো পাতাড়ি কোপাতে থাকে। তাদের ২ জনের আত্ম চিৎকারে গ্রাম পুলিশ মনু মিয়া, ও তার স্ত্রী হাসিনা ও ফারুকের স্ত্রী মুক্তারা বেগম এগিয়ে এলে তাদেরকে ও এলোপাতাড়ি মারধর ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে। সবারের আত্ম চিৎকারে গ্রামবাসীরা ছুটে এলে তাদেরকে ও এলোপাতাড়ি মারধর করে। তাদের আক্রমণে ৮ জন আহত হলে তাদের বদরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে গ্রাম পুলিশ মনু মিয়া বদরগঞ্জ থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছে। তবে এলাকায় এ ঘটনা নিয়ে উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

এম হামদিুর রহমান / দৈনিক সংবাদপত্র 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here