বগুড়ায় শ্লীলতাহানীর ঘটনা কে কেন্দ্র করে সংর্ঘষে নিহত ১ জন

0
69
বগুড়ায় শ্লীলতাহানীর ঘটনা কে কেন্দ্র করে সংর্ঘষে নিহত ১ জন
বগুড়ায় শ্লীলতাহানীর ঘটনা কে কেন্দ্র করে সংর্ঘষে নিহত ১ জন
7 Shares

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার গাবতলী উপজেলার নেপালতলী ইউনয়িনের পারকাঁকড়া ভাঙ্গিরী পাড়া গ্রামে। ভাবির শ্লীলতাহানীর ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে দেবর অমৃত কুমার (২৮) নিহত। উক্ত ঘটনাটি ঘটছে বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টায়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নেপালতলী ইউনয়িনের পারকাঁকড়া ভাঙ্গিরী পাড়া গ্রামের এনামুল হকের ছেলে রিফাত

শ্লীলতাহানীর ঘটনা কে কেন্দ্র করে সংর্ঘষে নিহত ১ জন
শ্লীলতাহানীর ঘটনা কে কেন্দ্র করে সংর্ঘষে নিহত ১ জন। 



র্পাশ্বর্বতী উজ্জলের বাড়িতে প্রবেশ করে পাক ঘরে শিউলী রানীকে পিছন থেকে জাপটে ধরে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। এ সময় কৌশলে শিউলী রানী লম্পট রিফাতের হাত থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ির গেইট বন্ধ করে রিফাতকে আটকে রেখে চিৎকার দেয়। বাড়ির আশে পাশের লোকজন ছুটে এসে গেইটের সামনে সমাবেত হলে। অন্য দিকে ছেলে রিফাতকে আটকের খবর পেয়ে পিতা এনামুল হক সহ বেশকিছু লোকজন নিয়ে,


উজ্জলের বাড়িতে গিয়ে রিফাতকে ছাড়ানোর চেষ্টা করে। এক র্পযায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে এবং ঘটনা স্থলেই অমৃত কুমারের মৃত্যু হয়। অমৃত কুমারের পরিবারের দাবী বড় ভাই উজ্জলের স্ত্রী ভাবি শিউলি রানীর শ্লীলতাহানীর প্রতিবাদ করায়, রিফাতের বাবা এনামুল হক বুকে আঘাত ও গলা টিপে অমৃত কুমারকে হত্যা করা করেছে। ঘটনার পর থেকে এনামুল হক ও তার পরিবারের লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে।


গাবতলী মডলে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুরুজ্জামান দৈনিক সংবাদপত্র প্রতিবেদক-কে বলেন, শ্লীল তাহানির ঘটনাকে কেন্দ্র করে অমৃত কুমার নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তরে জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল র্মগে পাঠানো হয়েছে। অমৃত কুমারের পিতা বাদী হয়ে এনামুল হক ও তার পুত্র রিফাতকে আসামী করে গাবতলী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।


জিএম মিজান / দৈনিক সংবাদপত্র 

7 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here