বগুড়ায় বিভিন্ন পূজা মণ্ডপে দূর্গোৎসব শুরু

0
57
বগুড়ায় বিভিন্ন পূজা মণ্ডপে দূর্গোৎসব শুরু
বগুড়ায় বিভিন্ন পূজা মণ্ডপে দূর্গোৎসব শুরু
0 Shares

বগুড়া প্রতিনিধিঃ প্রাচীনকাল থেকে পালন করে আসা সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দূর্গোৎসব মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে, আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে সার্বজনীন শারদীয় দুর্গোৎসব। ধূপ-ধুনুচি, পঞ্চপ্রদীপ, উলুধ্বনি আর ঢাকের তালে শয়ংকালে আসনে অধিষ্ঠিত হবেন দেবী দূর্গা। মণ্ডপ আর মন্দিরগুলো মুখরিত হয়ে উঠবে ভক্তদের পদ চারোনায়। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় গ্রন্থ অনুযায়ী বৃহস্পতিবার সকালে দূর্গাদেবীর ষষ্ঠীর ঘট বসবে

ও পূজা অনুষ্ঠিত হবে। সন্ধ্যাবেলায় দেবী দূর্গার আমন্ত্রণ ও অধিবাস হবে। প্রতি বছরের ন্যায় এবার বগুড়ায় ৬৩১ টি পূজামন্ডপে শারদীয় দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু ভাবে পূজা উদযাপনে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে পূজা মণ্ডপ গুলোকে বর্ণিল সাজে সজ্জিত করা হয়েছে। পূজাকে ঘিরে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করিয়াছেন মৃৎ শিল্পীরা।

জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সূত্রে জানা যায়, জেলার ১২টি উপজেলার মধ্যে সদরে ১১৫টি, শাজাহানপুরে ৫৪টি, শিবগঞ্জে ৫৪টি, সোনাতলায় ৩৬টি, সারিয়াকান্দিতে ২০টি, ধুনটে ৩২টি, গাবতলীতে ৬০টি, শেরপুরে ৮০টি, নন্দীগ্রামে ৪৩টি, কাহালুতে ৩৮টি, আদমদীঘিতে ৬০টি এবং দুপচাঁচিয়ায় ৩৯টি মন্ডপে দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। বগুড়া জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দীলিপ বাবু দৈনিক সংবাদপত্র

প্রতিবেদক-কে বলেন, দফায় দফায় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রশাসক ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে তাদের মিটিং হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে কেন্দ্রীয় ভাবে তাদের ২৬টি শর্ত বা দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এগুলোর মধ্যে উল্লেখ যোগ্য হলো মন্ডপে মন্ডপে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা, সামাজিক দুরত্ব বজায় নিশ্চিত করা, দর্শনার্থীদের পূজা মন্ডপে বেশি সময় না দেওয়া, আলোকসজ্জা থেকে বিরত থাকা,

কোন প্রকার মেলা না বসানো, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন না করা, কোন প্রকার সাউন্ড বক্স বা গান বাজনা না করা। বগুড়া জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী দৈনিক সংবাদপত্র প্রতিবেদক-কে বলেন, দূর্গাপূজায় কঠর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এবার পুলিশ ও আনসার বাহিনীর মোবাইল টিম সার্বক্ষণিক নিরাপত্তায় কাজ করবে।

পূজাকে কেন্দ্র করে কোনো মহল যাতে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না করতে পারে, সেজন্য জেলা পুলিশ সর্বদা সর্তক রয়েছে। একই সাথে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা উদযাপনেরও আহ্বান জানিয়েছেন।

জিএম মিজান / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

পোস্ট টি সম্পর্কে আপনার মতামত জানানঃ