বগুড়ায় দুর্বৃত্তরা প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করলো এক সন্ত্রাসীকে

0
45
ফাইল ছবি
0 Shares

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়া শহরের আকাশতারা এলাকায় প্রকাশ্যে শাকিল (৩০) নামে এক সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার বেলা ১১ টায় উক্ত ঘটনা ঘটে। নিহত শাকিল শহরের নারুলী তালপট্টি এলাকার শফিকুল ইসলামের ছেলে। তার নামে দুটি হত্যাসহ কয়েকটি মামলা রয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা বলেন, জুয়ার বোর্ড থেকে পাওয়া টাকার ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে বিরোধ ও পরকীয়ার জের ধরে এই হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়। স্থানীয়রা আরও বলে, শাকিল ধাওয়াপাড়া ও নারুলী এলকায় বালু ব্যবসার পাশাপাশি জুয়ার আসর নিয়ন্ত্রণ করতো। শাকিলের বাড়ি শহরের উত্তর চেলোপাড়ায় হলেও সে বসবাস করতো নারুলী তালপট্টি এলাকায়।

নিহত শাকিলের সাথে একই এলাকার আল আমিন নামের এক যুবকের বিরোধ দীর্ঘদিনের। কয়েক বছর আগে আল আমিনকে পুলিশ অস্ত্রসহ গ্রেফতার করে। আল আমিন জেলে থাকাকালে তার স্ত্রীর সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে শাকিল। আল আমিন জামিনে বের হওয়ার পর তাদের মধ্যে বিরোধ চরমে পৌঁছে। এই বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য নারুলী পুলিশ ফাঁড়িতে শালীস বৈঠকও হয়েছে।

তারা আরও বলেন, নারুলী এলাকায় জুয়ার আসর থেকে শাকিল ৩০ হাজার টাকা চাঁদা (স্থানীয় ভাষায় বিট মানি) নেয়। এই টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। ওই বিরোধের জেরে শুক্রবার ১১ টায় শাকিল আকাশতারা এলাকায় গিয়ে শাওন ও হাবিব নামের দুইজনকে মারধর শুরু করে। এ সময় ওই দুজনের সহযোগীরা শাকিলকে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে ফেলে রেখে এলাকা ত্যাগ করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী দৈনিক সংবাদপত্র প্রতিবেদক- কে বলেন, হত্যার সাথে জড়িতদের সনাক্ত করা হয়েছে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে। জড়িতদের গ্রেফতার করতে অভিযান শুরু হয়েছে। নিহত শাকিলের বিরুদ্ধে ২টি হত্যা মামলা রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

জিএম মিজান / দৈনিক সংবাদপত্র

0 Shares

পোস্ট টি সম্পর্কে আপনার মতামত জানানঃ