বগুড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু ১৯জন, শনাক্ত ২৩৮ জন

0
28
0 Shares

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ায় করোনা দিন দিন ভয়াবহ রুপ ধারণ করছে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে বগুড়ার তিন হাসপাতালে করোনার উপসর্গ নিয়ে ১১জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ৩জন, মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ৩জন, টিএমএসএস হাসপাতালে একজন ও নিজ বাড়িতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যু তলিকায় যুক্ত ৮জন হলো-গাইবান্ধার রেহানা (৯০), নওগাঁর মুসলেমা (৪০) ও রহমান সরকার (৬৩),

জয়পুরহাটের মোর্শেদা (৪০), তবিবর (৬৮) ও বাবু (৩৫) এবং বগুড়া শিবগঞ্জের দুলাল (৮৫) ও আজাহার ৫০ এদের মধ্যে আজাহার নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ ছাড়াও গত ২৪ ঘন্টায় সরকারী বেসর কারী পিসিআর ল্যাবে পরীকক্ষা করা ৮১০ নমুনার ফলাফলে ২৩৮জন পজিটিভ হয়েছে। ২৩৮জনের মধ্যে সদরের ১৭৭জন, শেরপুরে ১১জন, দুপচাঁচিয়ায় ৯জন, গাবতলীতে ৭জন, কাহালুতে ৭জন, সারিয়াকান্দিতে ৬ জন, ধুনটে ৬জন, আদমদীঘিতে ৭জন, সোনাতলায় ৩জন, শাজাহানপুরে ৩জন এবং শিবগঞ্জে ২জন।

আক্রান্তের হার ২৯দশমিক ৩৮শতাংশ। একই সময়ে সুস্থ হয়েছে ৮৮জন। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ৫ই জুলাই ঢাকায় পাঠানো ২১৭ নমুনার ফলাফলে ৯৩জন, বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল পিসিআর ল্যাবে ২৮২টি নমুনায় ৬৬জন, জিন এক্সপার্ট মেশিনে ৪নমুনায় ৩জন, এন্টিজেন পরীক্ষায় ২৫৯ নমুনায় ৬০জন এবং টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাত উল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতাল পিসিআর ল্যাবে ৪৮নমুনায় ১৬জন পজিটিভ হয়েছে।

এই নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হলো ১৪ হাজার ৯৩১জন এবং সুস্থ ১৩ হাজার ৮৩জন। এছাড়াও নতুন করে ৮জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যু ৪৩৭জন। বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন রয়েছে ১৪১৩জন। ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এ প্রতিবেদক-কে বলেন, নতুন আক্রান্তদের নিজ নিজ বাড়ীতে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চিকিৎসা চলছে। যদি কারও অবস্থা জটিল হয় তাহলে দ্রæত হাসপাতালে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। করোনা আক্রান্তে এবং উপসর্গে মারা যাওয়ার মধ্যে বিস্তর তফাৎ রয়েছে। যে ১১জন করোনা উপ সর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছেন তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ফলাফল পেলে জানানো হবে।

জিএম মিজান

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here