বগুড়ায় এক নারী গণধর্ষণের শিকার গ্রেফতার ৩ জন

0
83
0 Shares

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শেরপুরে কাজের সন্ধানে এসে স্বামী পরিত্যক্তা এক নারী গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ভুক্তভোগী নারীর চিৎকারে স্বানীয়রা এসে তিন ধর্ষণকারীকে হাতেনাতে আটক করেন। পরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে তাদের। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে শুক্রবার (১৬ই এপ্রিল) দুপুরে ভুক্ত ভোগী নারী বাদী শেরপুর থানায় মামলা দায়ের করে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- উপজেলার বাগড়া হঠাৎপাড়া গ্রামের আব্দুস সামাদের পুত্র মামুন প্রামাণিক (৩৫),

একই গ্রামের আবুল সেখের পুত্র আব্দুল খালেক (২৮) ও পৌরশহরের উত্তরসাহাপাড়া গ্রামের সাইফুল সর কারের পুত্র সোহাগ সরকার (২২)। মামলা সূত্রে জানা যায়, ধুনট উপজেলার গোসাইবাড়ী চিতুলিয়া গ্রামের আবিন সরকারের স্বামী পরিত্যক্তা ওই নারী বাসা-বাড়ীতে কাজের সন্ধানে বৃহস্পতিবার (১৫ই এপ্রিল) বিকেলে শেরপুর শহরে আসে। এরপর শহরের একাধিক বাড়তে কাজের সন্ধান করেন। দিন ঘনিয়ে রাত নেমে এলে বাড়ী ফেরার উদ্দেশ্যে ধুনট মোড়ে সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ডে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন।

তখন রাত প্রায় ৮টা এসময় গ্রেফতারকৃতরা বাগড়া হঠাৎপাড়া গ্রামের একটি বাড়ীতে কাজের সন্ধান দেয় এবং ব্যাটারি চালিত একটি অটো রিকশাযোগে সেখানে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে পৌঁছার পর ওই বাড়ীতে তাকে না নিয়ে একটি পুকুর পাড়ে নিয়ে যায় তারা। পরে প্রাণনাশের ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করতে থাকে। এ সময় তাঁর চিৎকারে স্বানীয়রা এসে তাদের হাতেনাতে আটক করেন। পরবর্তীতে থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এলে তাদের সোপর্দ করা হয় বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শহীদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এ প্রতিবেদক-কে বলেন, ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে থানায় নারী নির্যাতন দমনে মামলা করেছেন। পরে তাঁর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শুক্র বার দুপুরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতা রকৃদের বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জিএম মিজান / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here