বগুড়ায় অজ্ঞাত আগুনে পোড়া লাশের পরিচয় মিলেছে

0
252
ফাইল ছবি

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলায় গলাকেটে ও আগুনে পুড়িয়ে মেরে ফেলা লাশের পরিচয় উদঘাটন করেছে থানা পুলিশ। নিহত ওই যুবক দুপচাঁচিয়া উপজেলার জিয়ানগর খিদিরপাড়া গ্রাামের কফির উদ্দীনের ছেলে রং মিস্ত্রি সেলিম হোসেন (৩০)। থানাসূত্রে জানা যায়, আগুনে পোড়া রং মিস্ত্রি সেলিম হোসেন ৪ জানুয়ারি গোপীনাথপুর এলাকার বারইল কুটিপাড়া মসজিদে রঙের কাজ শেষে বিকালে বাড়ি ফিরে আসে। সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে বের হয়ে যাওয়ার পর থেকে তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। পরের দিন বুধবার লোকমুখে বেড়ঞ্জগ্রামের সিংড়াগাড়ী নামক স্থানে জবাই করা ও আগুনে পোড়া ছেলের লাশ পাওয়া যায়। কফির উদ্দীন ও তার পরিবারের লোকজন ছেলের মুখমন্ডল, বুক, পরনের পাঞ্জাবী, হাতের অংশ, নীল রঙের জিন্স প্যান্টের অংশ দেখে ছেলে সেলিমের লাশ শনাক্ত করেন। বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার জিয়ানগর খিদিরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বাবা কফির উদ্দীন বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। দুপচাঁচিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান এ প্রতিবেদককে বলেন, সেলিমকে হাতবেঁধে জবাই করে হত্যার পর পেট্রোল বা কেরোসিন দ্বারা আগুনে পুড়িয়ে লাশের পরিচয় গোপন করার চেষ্টা করা হয়েছিলো, আমরা তদন্ত করে পোড়া লাশের পরিচয় সনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছি, ঘটনার রহস্য উদঘাটনসহ জড়িতদের গ্রেফতারের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

জিএম মিজান / দৈনিক সংবাদপত্র 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here