পাইকগাছায় অপহৃত ভিকটিম হাবিবুরের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন ওসি এজাজ শফী

0
32
0 Shares

পাইকগাছা প্রতিনিধিঃ পাইকগাছায় প্রায় ১ বছর পর অপহরণ মামলার ভিকটিম হাবিবুরকে উদ্ধারের পর তার নিজ বাড়ি রেজাক পুরে তার পরিবারের কাছে বুঝে দিলেন এবং তার চিকিৎসার ভার নিলেন ওসি এজাজ শফী। এ মানবিকতার জন্য এলাকা বাসি তাকে সাধুবাদ জানান। রোববার তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে চাপাই নবাব গঞ্জের নাচোল থানা পুলিশের সহায়তায় এস আই মুনতাসীর মাহমুদ অপহৃত হাবিবুরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসার পর সোমবার হাবিবুরকে আদালতে পাঠানো হয়।

তার মানষিক অবস্থা বিপর্যস্ততার ফলে তাকে মানবিকভাবে চিকিৎসার ভার নিলেন ওসি এজাজ শফি। এরপর সকল আইনী প্রক্রিয়া সম্পন্নের পর মঙ্গলবার সকালে আইনী প্রক্রিয়া শেষে হাবিবুরকে সাথে নিয়ে গ্রামের বাড়ি উপজেলার কপিলমুনি ইউনিয়নের রেজাকপুর গ্রামে এক আবেগঘন পরিবেশে ওসি এজাজ শফি, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই মুনতাসীর মাহমুদ সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গ্রমের গন্যমান্য ব্যাক্তি বর্গের উপস্থিতি তে হাবিবুরকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন।

এ সময় মানবিক অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এজাজ শফি হাবিবুরের চিকিৎসা ও দেখভাল চালিয়ে যাবেন বলে জানান। উল্লেখ্য, উপজেলার রেজ্জাকপুর গ্রামের অপুর গাজীর ছেলে হাবিবুর গাজী (২০) কে ইটের ভাটায় কাজে নেয়ার কথা বলে বিগত ৪ঠা এপ্রিল ২০২০ তারিখে অপহরণ করা হয়। এ অভিযোগে হাবিবুরের পিতা বাদী হয়ে পাইকগাছা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তালা থানার দেওয়ানা পাড়া গ্রামের মফিদুল বিশ্বাস (৩০) ও জাফর বিশ্বাসের ছেলে শাওয়ান বিশ্বাস (২৫) এর নামে অপহরণ মামলা করে।

পুলিশ আসামীদের গত ২৭ই ডিসেম্বর মানিকগজ্ঞের সিংহাই থানা থেকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন এবং মামলার ভিকটিমের উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যায় পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে রোববার চাপাই নবাব গঞ্জের নাচোল থানা পুলিশের সহায়তায় এস আই মুনতাসীর মাহমুদ অপহৃত ভিকটিম হাবিবুরকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। পরে ওইদিন তাকে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

নিজস্ব প্রতিবেদক / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here