পাইকগাছার দেলুটির বিকল্প ভেড়ীবাঁধ ভেঙ্গে ফের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত ইমদাদুল হক, পাইকগাছা (খুলনা)

0
47

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে খুলনার পাইকগাছার দেলুটি ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত ভেড়ীবাঁধ স্থানীয় জনগনের সহায়তায় মেরামত করার পর আবারও ভেঙে গেছে। এত কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। ফলে ঘরে ফেরা নিয়ে অনিশ্চয়তায় পড়েছেন ভেড়ীবাঁধে আশ্রয় নেওয়া ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসী। ইউনিয়নবাসী টেকসই ভেড়ীবাঁধ ও পর্যাপ্ত সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণের দাবি জানিয়ে প্রধানম্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
গত ২০ মে সুপার সাইক্লোন আম্পানের আঘাতে উপজেলার দেলুটি ইউনিয়নের পানি উন্নয়ন বোর্ড ২০, ২০/১ ও ২২নং পোল্ডারের ওয়াপদার ভেড়ীবাঁধ ভেঙে প্রায় ১৬টি গ্রাম প্লাবিত হয়। আশ্রয়হীন হয়ে পড়ে কয়েক হাজার মানুষ। উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় ও ইউনিয়ন পরিষদের তত্ত্বাবধানে এলাকাবাসী স্বেছাশ্রমের ভিত্তিতে টানা এক সপ্তাহ কাজ করে ২৮ মে বিকল্প ভেড়ীবাঁধ নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে। কিন্ত এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই গতকাল প্রবল পানির স্রোতে গেওয়াবুনিয়ার উত্তরপাড়া থেকে বিকল্প ভেড়ীবাঁধ ভেঙে ফের গেওয়াবুনিয়া, পারমধুখালী, চকরীবকরী ও দিঘলিয়া গ্রামের আংশিক প্লাবিত হয়। এর ফলে ঘরে ফেরা অনিশ্চতা হয়ে পড়েছে ভেড়ীবাঁধে আশ্রয় নেওয়া মানুষের।
দেলুটি ইউপি চেয়ারম্যান রিপন কুমার মন্ডল জানান, অনেক পরিশ্রম করে বিকল্প ভেড়ীবাঁধ নির্মাণ করে পোল্ডারে অভ্যান্তরে পানি প্রবেশ বন্ধ করা হয়েছিল। কিন্ত নদীতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রবল স্রোতে বার বার বিকল্প ভেড়ীবাঁধ ভেঙে যাচ্ছে। গতকালের ভাঙন এতটাই গভীর হয়েছে সেখানে বাঁধ দিলে টিকছেনা। এ জন্য প্রয়োজন টেকসই ভেড়ীবাঁধ। এছাড়া ইউনিয়নের ৩টি দ্বীপে পর্যাপ্ত সাইক্লোন শেল্টারও নেই। ন্যূনতম এ ৩টি দ্বীপ ৭/৮টি সাইক্লোন শেল্টার প্রয়োজন। যেখানে রয়েছে মাত্র একটি। ঝুঁকিপূর্ণ ইউনিয়নবাসীর পক্ষ থেকে প্রধানম্ত্রী শেখ হাসিনা ও সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবুর নিকট প্রাণের দাবি আমরা ত্রাণ চাই না, পর্যাপ্ত সাইক্লোন শেল্টার ও টেকসই ভেড়ীবাঁধ চাই।

ইমদাদুল হক / দৈনিক সংবাদপত্র 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here