নাটকে অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত এম এ সালাম সুমন

0
47

কিশোরগঞ্জের ছেলে এম এ সালাম সুমন। নতুন যারা অভিনয় করছেন টিভি নাটকে, পরিচালকরা তার মধ্যেই বেশি আগামীর সম্ভাবনা দেখছেন। আর তাই দিন দিন তাকে নিয়ে কাজ করার আগ্রহও বাড়ছে নির্মাতাদের। তাই অভিনয় নিয়ে নিয়মিত ব্যস্ত সময় পার করছেন এই অভিনেতা ।একাধিক ধারাবাহিক ও একক নাটক নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন এখন। এছাড়া তিনি এই মাসেই একটা অনুদানের সিনেমার কাজ শুরু করবেন। তার অভিনীত ধারাবাহিকগুলো হলো- সজিব মাহমুদের ‘মমতাজ মহল’, ইমদাদুল হক খানের ‘নাটাই ঘুড়ি’ ও সজিব মাহমুদের হৈচৈ.কম টিভিতে প্রচারিত হচ্ছে। যেগুলো স্যুটিং চলছে তার মধ্যে ভালোবাসা.কম, সোনার পাখি ও টাকা প্রমুখ।

এছাড়া তার অনেক গুলো একক নাটক এরই মধ্যে প্রচারিত হয়ে গেছে। তার মধ্যে হচ্ছে- অপূর্ব আমিনের ‘পালোয়ান বিবি’, ‘কপাল’, ‘যুগল’ ‘ব্যাচেলর লাইফ’ ও ‘প্রিয় শাশুড়ী আম্মা’ এছাড়া চন্দন চৌধুরীর ‘যে পথের শেষ নেই’, ‘লাভার বয়’, এবং রফিকুল ইসলামরে ‘সুন্দরী বউ’,রেজা মাহমুদের ‘তবুও হাসতে হয়’ও তার ‘দুই জিবন’ সহ নোমান খানের ‘যোগফল শূন্য’ এ বাবুলের ‘ডেলিভারি বয়’।

এদিকে তিনি একাধিক একক নাটকের শুটিং শুরু করবেন । তার মধ্যে নাম হয়েছে নাটক গুলো হলো- এ বাবুলের পরিচালনায় আসবে ‘ভাইয়া’, ‘এমন না হতো যদি’, ‘বনলতা এবং স্টেশনের গল্প’ ও ‘পিরিতের হাট বাজার’ এছাড়া জুয়েল শরিফের ‘ওরে ডাকাইত’ এবং নোমন খানের ‘বড় বউ’। এগুলো ছাড়া আরো অনেক নাটকের কথা চলছে বলে জানাগেছে এই অভিনেতা থেকে।

সুমন বলেন, আমি আগে থেকেই ধারাবাহিক ও একক নাটকের প্রতি মনোযোগী। গেল ঈদেও আমার নাটকের সংখ্যা ছিল বেশ। লকডাউনের পর বেশ কয়েকটি নতুন ধারাবাহিক ও একক নাটকের সঙ্গে যুক্ত হয়েছি। এগুলোর গল্প ভালো লেগেছে এবং অবশ্যই চরিত্রে ভিন্নতা আছে বলেই কাজ করছি।

সুমন জানান, আমি সব সময় চেষ্টা করি বেছে বেছে কাজ করতে, আপাতত একটি সিনেমায় অভিনয় করছি। সিনেমাটির নাম জলরং। এটি পরিচালনা করেছেন অপূর্ব রানা । তবে নাটক নিয়ে কাজ করে যেতে চাই।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here