দোহারে মধ্যরাতে ডাকাতি, বাবা-ছেলেকে কুপিয়ে জখম

0
185
6 Shares

দোহার প্রতিনিধিঃ মঙ্গলবার গভীর রাতে ঢাকার দোহার উপজেলার চরকুশাই এলাকায় শেখ সামাদের বাড়িতে দুুর্বৃত্তের হামলায় শেখ সামাদ (৬৫) ও তার ছেলে শেখ নয়ন (২৫) কে কুপিয়ে গুরুতর আহত হয়েছে। গুরুত্বর আহত শেখ নয়নকে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়াও বাড়িতে থাকা নগদ আড়াই লাখ টাকা, ১টি ল্যাপটপ, ৬টি মোবাইল ফোন ও একটি এটিএম কার্ড লুট করা হয়েছে বলে ভুক্তভোগী পরিবার থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। উপজেলার চর মোহাম্মদপুর ফাঁঁড়ির টহল পুুলিশের দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।
শেখ সামাদের ছোট মেয়ে জানান, মঙ্গলবার রাত আড়াইটার দিকে ঘরের পিছনের লোহার দরজা ভেঙে ৪ দুুর্বৃত্ত ঘরে প্রবেশ করে নয়নকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নয়নকে কুপিয়ে জখম করে। শেখ সামাদ দুুর্বৃত্তদের থামাতে গেলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা। ঘরের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ঘরের আসবাবপত্র ভেঙে লুুটপাট করে দুুুর্বৃৃৃত্তরা। ভোর রাত সাড়ে ৩টার দিকে চর মোহাম্মদপুর ফাঁঁড়ির টহল পুুলিশের দল ঘটনাস্থলে পৌছলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পুুলিশ আহতদের উপজেলা স্বাাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। চিকিৎসক তাক্ষণিক নয়নকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সেখান থেকে বিএসএমএমইউ তে রেফার্ড করা হয়।
মোহাম্মদপুর ফাঁঁড়ির টহল পুুলিশের দলের দায়িত্বে থাকা উপপরিদর্শক দিনেশ ঘোষ হামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় আইনগত প্রক্রিয়া গ্রহন করা হচ্ছে।

কাজী জিয়াদ / দৈনিক সংবাদপত্র

6 Shares

পোস্ট টি সম্পর্কে আপনার মতামত জানানঃ