তবলা শিল্পী’র স্ত্রীকে নিয়ে পালালেন প্রতারক শিপন

0
101
0 Shares

বাংলাদেশের জনপ্রিয় যন্ত্র সঙ্গীত শিল্পী মোঃ জাহাঙ্গীর মির্জা বাবুল। দেশ ও বিদেশের খ্যাতিমান একজন তবলা শিল্পী। বাংলাদেশ ও বহির্বিশ্বে দেশী ভারতীয় ও বিদেশী কন্ঠশিল্পীদের সাথে তবলা বাজিয়ে সুখ্যাতি অর্জন করেছেন।

দেশের মান মর্যদা বহিঃবিশ্বে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছেন।সেই শিল্পী মোঃ জাহাঙ্গীর মির্জা বাবুল পারিবারিক জীবনে সহধর্মিণী আসমা বেগম (৩৫) একজন প্রতারকের সাথে পরকীয়া প্রেমে জড়ান। র‍্যাব, গোয়েন্দা পরিচয়ে ছিনতাইকারী সাইদ ওরফে শিপন বাংলাদেশর এক উজ্জ্বল নখত্রকে নিভিয়ে দিতে তার স্ত্রী’র সাথে পরকীয়া লিপ্ত হয়ে তার তিন সন্তান সহ ভরা সংসার ভেঙ্গে ফেলে।

শিল্পী যখন তার পেশায় ব্যস্ত, তখন উক্ত পরকীয়ার নায়িকা আসমা নায়কের সাথে পরকীয়ায় মগ্ন। ধীরে ধীরে তাদের ভেতরে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হতে থাকে প্রয়াসই। এই সব বিষয় শিল্পী জানতেন পারায় নিজ স্ত্রীকে বোঝানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

এ বিষয়ে বিস্তারিত বলেন তবলা শিল্পী জাহাঙ্গীর, গত ১২ অক্টোবর অতি ভোরে দরজার বাহির দিয়ে আটকিয়ে দুই পুত্র সন্তান রাব্বি মির্জা (৯) ও বুলবুল মির্জা (৫) ও শিল্পী মির্জাকে ঘুমন্ত অবস্থায় রেখে মহাখালীর (৬৭) নাম্বার বাসা ত্যাগ করেন তার স্ত্রী।

বর্তমানে আমার দুই সন্তান দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে দিনাতিপাত করছেন। সব আছে তবু যেন কিছু নাই। এই ধরনের ফুটফুটে দুটি সন্তান ফেলে কোন পাষান্ড নারী বা স্ত্রী গৃহত্যাগ করতে পারে প্রেমের টানে বলে জানা নাই। আজ কাল প্রায় প্রতি ঘরেই এই ব্যপারটি দেখা দিয়েছে যা করোনা ভাইরাস সংক্রমণকে ও ছাড়িয়ে যেতে পারে।

তিনি আরো জানান, আমি যখন বুজতে পারি সে পালিয়ে গেছে তখন তাদের নামে থানায় জিডি করি। যার মামলা নাম্বার হলো ৩৬০ পারিবারিক আদালত। আমার স্ত্রী যার সাথে পালিয়েছে যখন বুজতে পারে সে একজন প্রতারক, মিথ্যাবাদী। তখন সে আবার ফিরে আসতে চাইছে। জাহাঙ্গীর তার স্ত্রীকে আবার ফিরিয়ে আনবেন।
তাছাড়া তিনি তার স্ত্রী ও প্রতারক শিপনের বিরুদ্ধে গত ২১ তারিখে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন (ক্র্যাব) এর অডিটোরিয়ামে ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া সাংবাদিকদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। তাদের বিষয়ে সাংবাদিকদের জানান। সাংবাদিকদের মাধ্যমে আকুল আবেদন করেন এবং এদের বিচার দাবি করেন।

বর্তমানে এই তবলা শিল্পী যদি এই কষ্টে, দুঃখে যদি নিভে যান, কে দেবে তার জবাব এই দুইটি নাবালক অবোধ শিশুদের কি অপরাধ ছিল, কেনো সেই পাষান্ড নরপিচাশ নেশাখোর পরকীয়ার নায়ক ঐ পিশাচিনীদেরকে নাকচ করেনি? কেন সেই নারীকেও এমন নেশায় মগ্ন হয়ে পরকীয়ার নায়িকার প্রেমে পাগল হয়ে অনৈতিক কাজে লিপ্ত হলো? কে দেবে তার জবাব।কোন কি বিচার নেই এর? নাসির আমার সাইদদের কবে সাজা হবে? এরা কবে মানুষ হবে?

উল্লেখ, বিশিষ্ট তবলা বাদক জাহাঙ্গীর মির্জা বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক আলমগীর এর সালা ও কন্ঠশিল্পী আখিঁ আলামগীর আপন মামা।

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here