জাতীয় শোক দিবসে ক্রাউন এর ইউটিউব চ্যানেলে ‘জোছনা’

0
77
বিজ্ঞাপন

জাতীয় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দেশের অন্যতম শীর্ষ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট এর ইউটিউব চ্যানেল ‘ক্রাউন প্লাস’ এ ১৪ অগাষ্ট শনিবার বিকেল ৪ টায় মুক্তি পাচ্ছে বিশেষ নাটক ‘জোছনা’।

শোয়েব চৌধুরীর গল্প অবলম্বনে ফেরারি ফরহাদ-এর চিত্রনাট্য ও সংলাপে খ্যাতিমান অভিনেত্রী গোলাম ফরিদা ছন্দা’র নির্দেশনায় নির্মিত এই নাটকে ছন্দা নিজেই কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন। আর এই নাটকের মাধ্যমেই তিনি নির্মাতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করলেন। জোছনা নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাতাব্দী ওয়াদুদ, শম্পা রেজা, আরমান পারভেজ মুরাদ, ইমরান হাসু, বাদলসহ আরো অনেকেই।

বিজ্ঞাপন

এখানে উল্লেখ্য জাতীয় শোক দিবস এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট অনেকগুলো নাটক, টেলিফিল্ম এবং বিশেষ দৈর্ঘের চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেছে। এগুলোর মধ্যে উল্লেখ্য জনক ও সন্তান (পরিচালনা বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ মনি, গল্প শোয়েব চৌধুরী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ ফেরারি ফরহাদ), কমরুদ্দির কম্বল (পরিচালনা আবু হায়াত মাহমুদ, রচনা মাসুম রেজা), আমাদের খোকা (রচনা ও পরিচালনা সুমন ধর), রানার (পরিচালনা গোলাম সোহরাব দোদুল, গল্প শোয়েব চৌধুরী) ইত্যাদি।

দেশের আর কোন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এধরনের উদ্যোগ নেয়নি।

জাতীয় শোক দিবস এবং বঙ্গবন্ধুর শতবার্ষিকী উপলক্ষে নির্মিত নাটক, টেলিফিল্ম এবং বিশেষ দৈর্ঘের চলচ্চিত্র প্রসঙ্গে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক নুর মোহাম্মদ মনি বলেন, এধরনের উদ্যোগ অবশ্যই প্রশাংসার দাবী রাখে। আগামীতে যেনো ক্রাউন মুক্তিযুদ্ধ এবং বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে পূর্ণ দৈর্ঘ চলচ্চিত্র এবং টেলিফিল্ম ইত্যাদি নির্মাণের উদ্যোগ নেয় এবং সেগুলো যেনো আন্তর্জাতিক ওটিটি প্ল্যাটফর্মে চালানোর উদ্যোগ নেয় এটাই প্রত্যাশা করছি।

এ প্রসঙ্গে ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট এর ডেপুটি সিইও তাজুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে ঘিরে আমাদের আরো অনেকগুলো নাটক এবং টেলিফিম নির্মাণের পরিকল্পনা ছিলো, যেগুলো আকস্মিক করোনা পরিস্থিতির কারণে বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি। পাশাপাশি এসব প্রকল্পের ক্ষেত্রে আমরা স্পন্সর কিংবা চ্যানেলগুলোর কাছ থেকেও একেবারেই সাড়া পাইনি।

স্পন্সরদের কিংবা টেলিভিশন চ্যানেল গুলোর অনিহা প্রসঙ্গে ক্রাউন ক্রিয়েশনস এর প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা সৈয়দ ইকবাল বলেন, আমাদের এখানে একটা বিষয় খুবই দুঃখজনক। স্পন্সরদের মাঝে মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং বঙ্গবন্ধু কেন্দ্রীক কোনও নাটক, টেলিফিল্ম কিংবা চলচ্চিত্রের ব্যাপারে মারাত্মক অনিহা আছে। ওনারা এধরনের কন্টেন্ট স্পন্সরে আগ্রহ দেখান না। পাশাপাশি এধরনের কন্টেন্ট প্রচারের ক্ষেত্রেও টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর মাঝে এক ধরনের স্পষ্ট অনিহা আমরা লক্ষ্য করেছি। এটা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায়না।

বিজ্ঞাপন

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here