জগন্নাথপুরে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে সওজ’র অভিযোগ

0
163
0 Shares

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ইসরাক আলীর বিরুদ্ধে রাণীগঞ্জ বাজারে রাতের আধারে সড়ক খনন করে সড়কের সরকারি ইট ও বালু উত্তো লন করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করেছেন সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগ। জানা গেছে, ২৪ই মার্চ রাতে ড্রেন নির্মাণের জন্য রাণীগঞ্জ বাজারের ভেতর দিয়ে বয়ে যাওয়া সড়কের দক্ষিণ পাশ এক্সেভেটর মেশিন দিয়ে খনন করেন রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইসরাক আলী।

এ সময় খননকালে উত্তোলনকৃত সড়কের ইট ও বালু অন্যত্র বিক্রির অভিযোগ উঠে। এ বিষয়ে সওজ’র উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী কাজী নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে জগন্নাথপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। যার অনুলিপি সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ও জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট প্রদান করা হয়। এ ঘটনায় ২৫ মার্চ বৃহস্পতিবার জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী হাসান ও সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-সহকারি প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য ইসরাক আলী বলেন, রাণীগঞ্জ বাজারে এলজিএসপি প্রকল্পের অধীনে ৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ড্রেন নির্মাণ কাজ আমি তদারকি করছি। যানজট না হওয়ার জন্য রাতে ড্রেন খনন কাজ ও উত্তোলনকৃত ইট ও বালু অন্যত্র রাখা হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কারো কাছে বিক্রি করিনি। রাণীগঞ্জ ইউপি চেয়ার ম্যান শহিদুল ইসলাম রানা জানান, মানুষের দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে রাণীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে রাণীগঞ্জ বাজারের গলিতে ড্রেন নির্মাণ কাজ চলছে। এতে ইউপি সদস্য ইসরাক আলীর কিছু নেই।

সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-সহকারি প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত আমাদের সড়ক খনন ও সড়কের সরকারি ইট-বালু নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, এ বিষয়ে খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে। জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী হাসান বলেন, সওজ’র সড়ক বাদ দিয়ে ড্রেন নির্মাণের জন্য বলা হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক / দৈনিক সংবাদপত্র 

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here