গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনো ভাইরাস বিষয়ক কর্মশালা

0
214
ফাইল ছবি

গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিঃ সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনা ভাইরাস বিষয়ক বিভাগীয় কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৭ মার্চ) মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের উদ্যোগে আইকিউএসি কক্ষে এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়। কর্মশালায় করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর ‘স্যুপ টু সিক বেড’ নিয়ে আলোচনা করেন মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. বিজন কুমার শীল। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন অনুষদের ডীন মহোদয়, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, প্রভাষক প্রমুখ।

অধ্যাপক ড. বিজন কুমার শীল বলেন, আমাদের দেশের মানুষদের দুটি কারণে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কম। যাদের শরীরে এনজাইম এসিই-২ নামক পদার্থের অনুপাত বেশি, তাদের করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি। সেই তুলনায় বাংলাদেশিদের খাদ্যাভ্যাস এবং এনজাইম এসিই-২ পদার্থের অনুপাত শরীরে কম থাকায় করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।

তিনি আরো বলেন, বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় এবং কার্যকর কোনো ওষুধ বা চিকিৎসা না থাকায় রোগটির লক্ষণ, উপসর্গ, প্রতিকার ও প্রতিরোধ বিষয়ে আমাদের সচেতন থাকতে হবে। এ ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে ব্যক্তিগত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিকল্প নেই। ২০০৩ সালে সার্স নামের যে ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব হয়েছিল। ২০১৯ সালে বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাসের সঙ্গে তার ৮০ শতাংশ মিল পাওয়া গেছে বলেন তিনি।

এসময় অধ্যাপক ড. বিজন কুমার শীল বলেন, নিউমোনিয়া, ডায়েরিয়া ও শুকনো কাশি হলো করোনা ভাইরাসের প্রাথমিক লক্ষণ ও উপসর্গ। যা আমাদের পাকস্থলী, ফুসফুস, কিডনি ও লিভারকে মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যাদের একেবারেই দুর্বল ও যারা ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছেন এ রকম বয়স্ক ব্যক্তিদের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অনেক বেশি।

মেহেদী / দৈনিক সংবাদপত্র 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here