কয়রায় অর্থ আত্মসাতের দায়ে দুই ইউপি সদস্য কে সাময়িক বহিস্কার

0
28
কয়রায় অর্থ আত্মসাতের দায়ে দুই ইউপি সদস্য কে সাময়িক বহিস্কার
কয়রায় অর্থ আত্মসাতের দায়ে দুই ইউপি সদস্য কে সাময়িক বহিস্কার
5 Shares

খুলনা প্রতিনিধিঃ খুলনার কয়রা উপজেলায় আমাদী ইউনিয়নে ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য মোঃ হাবিবুল্লাহ সানা ও ৭-৮-৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য শেফালী বেগম কে সাময়িক ভাবে বহিস্কার করা হয়েছে।প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের ২৫০০ টাকা ও সরকারি ত্রান বিতরণে আমাদী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড ও ৭-৮-৯ নং ওয়ার্ডে ব্যাপক অনিয়ম এ অর্থ সঠিক প্রাপ্য ব্যাক্তিরা পাইনি।

মেম্বার হাবিবউল্লাহ সানা ও শেফালী বেগম বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের মোবাইল নাম্বার এবং নিজের নাম্বার দিয়ে ঈদ উপহারের ২৫০০ টাকা হাতিয়ে নেওয়ায়।আমাদী ইউনিয়নের নাকশা গ্রামের মৃত আঃ মালেকের বিধবা স্ত্রী আশশাফুন্নেছা, ফারুক, মোসলেম, আল আমিন, নজরুল ইসলাম, আশিকুর, মোমিন সানাসহ বেশ কিছু ভূক্তভোগী কয়রা উপজেলার নির্বাহী ম্যাজি স্ট্রেট বরাবর ইউপি সদস্য হাবিবুউল্লাহ সানা ও শেফালী বেগমের

বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দাখিল করে। এ অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বৃহস্পতিবার ৩০ই জুলাই স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত পত্রে ওই দুই ইউপি সদস্যকে অস্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়। স্থানীয় সরকার বিভাগের ওই পত্রে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের ২৫০০ টাকা উপভোগকারীদের

অনুমতি ব্যতীত নিজেদের মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ স্থানীয় তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় জেলা প্রশাসকের প্রস্তাব মোতাবেক জনস্বার্থে সাময়িকভাবে তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে। একই সঙ্গে স্থানীয় সরকার আইন মোতাবেক তাদের কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তা ১০ কার্যদিবসের মধ্যে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার বিভাগকে জানাতে বলা হয়েছে।

শাহরিয়ার কবির / দৈনিক সংবাদপত্র 

5 Shares

পোস্ট টি সম্পর্কে আপনার মতামত জানানঃ