করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে চীনা নাগরিকসহ বাগেরহাট হাসপাতালে ভর্তি ৫

0
190
ফাইল ছবি

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ রোববার (১ মার্চ) গভীর রাতে বাগেরহাটের মোংলা উপজেলার পশুর নদী সংলগ্ন সাইলো এলাকা থেকে ৩০০ বোতল মদসহ ৩ চীনা নাগরিকসহ ৫ জনকে আটক করে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন। আটককৃতদের বাগেরহাট আদালতে প্রেরণ করা হলে, আদালত তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। কিন্তু সোমবার (২ মার্চ) রাতে বাগেরহাট কারাগার কর্তৃপক্ষ আসামীদের জেলখানার ভিতরে না নিয়ে সতর্কতা অবলম্বনের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

আর এতেই মুহুর্তের মধ্যে বাগেরহাট শহর জুড়ে ছড়িয়ে পরে করোনা ভাইরাস আতংক। এরই সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুক) করোনা ভাইরাস নিয়ে নানা পোষ্ট এ আতংক আরও বাড়িয়ে তোলে জনসাধারনের মাঝে। তবে বাগেরহাট সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে ৩ চীনা নাগরিকসহ হাসপাতালে ভর্তি ৫ জনের কারও মধ্যে করোনা ভাইরাসের কোন পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে হাসপাতালে অবস্থানরত রোগী, রোগীর স্বজন ও স্থানীয় সকলকে আতংকিত না হয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালে ভর্তিকৃতরা হলেন, চায়না‘র জে সনের ছেলে জেরী (২৭), জ্যাক জিয়াও চ্যাংয়ের ছেলে জ্যাক জিয়া (৩৩), লিং হং‘র ছেলে ফু (৩৩)। নারায়নগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলার চিটাগং রোডের মনসুর আহমেদের ছেলে হাসানাত (২৯), বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জ উপজেলার সোনাখালী গ্রামের মো. আফজাল সিকদার ছেলে মো. রুমন সিকদার (৩২), বাগেরহাট সদর হাসপাতালের করোনা ভাইরাস আইসোলেশন ইউনিটের ইনচার্জ মেডিকেল অফিসার ডা. জুনায়েদ সাফার মাহমুদ বলেন, সতর্কতা অবলম্বনের জন্য পুলিশ ৩ চীনা নাগরিকসহ পাঁচজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

আমরা তাদেরকে করোনা ভাইরাস আইসোলেশন ইউনিটে রেখে দুই ঘণ্টা পরীক্ষা করেছি। তাদের মধ্যে করোনা ভাইরাসের কোনো লক্ষণ পাওয়া যায়নি। তাদের শরীরের তাপমাত্রাও স্বাভাবিক রয়েছে। তারা সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন। করোনা ভাইরাসের লক্ষণ তাদের শরীরে পাওয়া না গেলেও আগামী ২৪ ঘণ্টার জন্য তাদের আইসোলেশন ইউনিটে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, রোববার (১মার্চ) গভীর রাতে মোংলা উপজেলার পশুর নদী সংলগ্ন সাইলো এলাকা থেকে ৩০০ বোতল মদসহ তাদের আটক করে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন। সোমবার (২ মার্চ) সকালে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করে আটককৃতদের মোংলা থানায় হস্তান্তর করা হয়। বিকেলে মোংলা থানা আটককৃতদের আদালতে সোপর্দ করে। আদালত তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। কারাগার কর্তৃপক্ষ আসামীদের জেলখানার ভিতরে না নিয়ে সতর্কতা অবলম্বনের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

মাসুম হাওলাদার / দৈনিক সংবাদপত্র 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here