করোনায় মৃত নারীকে গোসল করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ইউএনও

0
32
0 Shares

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার পল্লী অঞ্চলের রিনা বেগম (৫৫) নামে এক নারী করোনায় আক্রান্ত হয়ে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে মৃত্যু হয়। কিন্তু করোনা য় মৃত্যু হওয়ায় তাকে গোসল ও কাফনের কাপড় পড়াতে কেউ এগিয়ে আসেনি। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাদিয়া আফরিন এসে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২ টায় ওই নারীকে দাফনের জন্য গোসল ও কাফনের কাপড় পড়ান।

জানা যায়, উপজেলার কুশাহাটা গ্রামের রিনা বেগম ও তার স্বামী মোতালেব হোসেন প্রায় দুই সপ্তাহ হলো করো নায় আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। গত মঙ্গলবার রিনা বেগমের অবস্থা গুরতর হওয়ায় পরিবারের সদস্যরা তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করায় সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল ৩টায় তার মৃত্যু হয়। মৃত রিনা বেগমকে গ্রামের বাড়ীতে নিয়ে আসলে, একজন মুসলিম নারীকে মৃত্যুর পর ধর্মীয় নিয়ম অনুসারে গোসল ও কাফনের কাপড় পড়াতে হবে।

কিন্তু কেউ রাজি না হওয়ায় খবরটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাদিয়া আফরিন জানতে পারলে তিনি দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত রিনা বেগমকে গোসল করান। পরে জানাযা শেষে তাকে দাফন করা হয়। উক্ত জানাজায় মাত্র ১৫ জন লোক অংশ গ্রহন করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম রেজা, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কামাল হোসেন, জোড়গাচা ইউপি চেয়ারম্যান রোস্তম আলী মন্ডল।

সোনাতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন এ প্রতিবেদক-কে বলেন, আমি স্থনীয়দের মাধ্যমে জান তে পারি করোনায় মৃত এক নারীকে কেউ দাফনের জন্য গোসল ও কাফনের কাপড় পড়াতে রাজি হচ্ছে না, তার কোনো সন্তান ও নেই। তখন আমি সেখানে গিয়ে গোসল করিয়ে দিয়ে কাফনের কাপড় পরিয়ে দেয় এটা আমার মানবিক দায়িত্ব।

জিএম মিজান

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here