“আলোর পাখিরা” নাটকের উদ্বোধনী মঞ্চায়ন

0
196
0 Shares

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার স্টুডিও থিয়াটার হলে ৪ ও ৫ মার্চ বৃহস্পতি ও শুক্রবার সন্ধ্যা ৭ টায় মঞ্চায়িত হবে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের সংগঠন ‘নব আনন্দ’র প্রথম প্রযোজনা “আলোর পাখিরা”। শামীমা শওকত লাভলীর রচনা ও নির্দেশনায় নির্মিত এ নাটকের কেন্দ্রবিন্দু একজন ব্যক্তি। যে কী-না বন্ধু হয়ে বিশ্বময় ঘুরে বেড়ায়; যেখানেই সমস্যা দেখে তা সমাধানে উদ্যোগী হয়ে ওঠে। অন্যায়ের প্রতিবাদ করে, নিজে সৎ পথে চলে এবং অন্যকেও অসৎ পথে চলতে বারন করে। অসমান সমাজ ব্যবস্থা, জাতপাতের ভেদাভেদ, সাদা কালোর বৈশম্য, বিশ্ব রাজনৈতিক অস্থিরতা তাকে ব্যাথিত করে তোলে।

যে কোন ভালো কাজে কাউকে সঙ্গী হিসেবে না পেলে সে একাই সৈনিকের মত নির্ভীকভাবে এগিয়ে চলে। এক সময় দেখা যায় সমাজের মানুষের নৈতিক স্খলন, নির্যাতন, বিচারহীনতার রাজনীতি এই সাহসী সৈনিককেও উদ্ভ্রান্ত করে তোলে। তখন তার চারপাশের মানুষেরা যাদের সে ন্যায় পথে চালিত করেছিল তারা তার পাশে এসে দাঁড়ায়। তাকে আস্বস্থ্য করে সবাই মিলে একসাথে কাজ করলে, অন্যায়ের প্রতিবাদ করলে নিশ্চয়ই এক সময় সকিছু সুন্দর হয়ে উঠবে। ক্ষুদে অভিনেতাদের পদচারনায় এভাবেই এগিয়ে চলে আলোর পাখিরা’র গল্প।

নাটকটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছে স্নেহা, আরাফাত, সামিয়া, সুমাইয়া, সুইটি, দোলা, সর্ণা, তিন্নি, সুলতানা, সাদিয়ে, মৌসুমী এবং রুহুল আমীন। ইস্তিয়াক হোসেনের সেট ও লাইট ডিজাইনে নাটকটির সঙ্গীতে রয়েছেন- মাজহারুল ইসলাম জুয়েল এবং সজীব বিশ্বাস। শামীমা আক্তার মুক্তার কোরিওগ্রাফিতে নাটকের পোশাক পরিকল্পনা করেছেন ইভান রিয়াজ ও আশা।

উল্লেখ্য, “নব আনন্দ” শিশুদের নিয়ে নাটক করার পাশাপাশি বিভিন্ন সচেতনতামূলক কাজ করে থাকে। ইতিমধ্যে তারা মাস্ক বিতরন, খালি জায়গায় বৃক্ষ রোপন, সচেতনতা বিষয়ে র্যালী, অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরন করেছে। সংগঠনটি শিশুদের পড়ালেখায়ও সহায়তা করে থাকে।

0 Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here