আজ ঐতিহাসিক পাকুড়িয়া গণহত্যা দিবস

0
70

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ আজ ২৮ই আগস্ট। নওগাঁর মান্দা উপজেলার ঐতিহাসিক পাকুড়িয়া গণহত্যা দিবস। ১৯৭১ সালের আজকের এই দিনে পাক হানাদার বাহিনী মান্দায় চালাই এক নারকীয় হত্যাকান্ড। সারা দেশের মানুষ যখন মুক্তিযুদ্ধের চেতানায় জেগে ওঠে, তখন নওগাঁর মান্দা উপজেলা সদর হতে প্রায় ৮ কিলোমিটার দূরে পাকুড়িয়া গ্রামে ২৮ই আগষ্ট সকালে পাকিস্থানী হানাদার বাহিনী বাড়ি বাড়ি তল্লাশী চালিয়ে জনসভার নাম করে স্থানীয় পুরুষ গ্রামবাসীকে একে একে ডেকে নিয়ে আসে বর্তমান পাকুড়িয়া ইউনাইটেড উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে।

এরপর সেখানে সবাইকে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে মেশিন গানের গুলি চালিয়ে নিরাপরাধ গ্রামবাসীকে নির্মম ভাবে হত্যা করে। তবে এ সময় গায়ে রক্ত মেখে নিঃশ্বাস চেপে রেখে মৃত্যুর ভান করে ভাগ্যের জোরে বেঁচে যান ১৯ জন। পরে কয়েক দিনের ব্যবধানে মারা যান আহতদের মধ্যে অনেকেই। সে সময় পাকুড়িয়া পরিণত হয়ে ছিল যেন এক বিধবা পল্লীতে। যারা শরীরে বুলেটের চিহ্ন নিয়ে বেঁচে আছেন তারা আজো সেই দিনের স্মৃতির কথা মনে করে আঁতকে উঠেন, আজো কেঁদে ওঠেন হারানো স্বজনদের কথা মনে করে।

এটি দেশের ইতিহাসে অন্যতম নির্মম পৈশাচিক গণহত্যার ঘটনা। অথচ সেই নারকীয় ঘটনার ইতিহাস আজও যথাযথ ভাবে সংরক্ষণ করা হয়নি। তেমন কোন উদ্যোগও নেয়া হয়নি শহীদদের স্মৃতি রক্ষার্থে। ৪৫ বছর যাবত এই দিনে শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় মিলাদ মাহফিল করা হলেও সরকারী ভাবে তেমন কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি আজও। অবিলম্বে সরকারী ভাবে পাকুড়িয়া গণহত্যার ইতিহাস, শহীদদের কথা স্বাধীনতা যুদ্ধের দলিল পত্রে লিপিবদ্ধ, স্মৃতি রক্ষার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ, এবং দিনটিকে সরকারী ভাবে পালনের জোর দাবী জানিয়েছেন শহীদ পরিবারসহ এলাকাবাসী।

মাহবুবুজ্জামান সেতু

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here